সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৮:৪৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ঘোষণা :

সুনামগঞ্জে নদীতে চাঁদাবাজির সময় র‌্যাবের হাতে আটক ১০

সুনামগঞ্জ জেলার জামালগঞ্জ উপজেলার সুরমা নদীতে বালু-পাথর বোঝাই নৌকা থেকে চাঁদাবাজির অভিযোগে  ১০ জনকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‌্যাব-৯। বৃহস্পতিবার ভোরে সুরমা নদীর দুর্লভপুর অংশ থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।

র‌্যাব ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিন জামালগঞ্জের দুর্লভপুর এলাকায় সুরমা নদীতে চাঁদাবাজি হয়। এমন অভিযোগ পেয়ে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-৯ এর কোম্পানী কমাণ্ডার সিঞ্জন আহমেদের নেতৃত্বে র‌্যাবের একটি টিম বৃহস্পতিবার ভোরে ভিশেষ অভিযান চালিয়ে ইমদাদুল হক আফিন্দীসহ ১০ জনকে আটক করে।

আটককৃত অন্যরা হলো- সাচনা বাজার ইউনিয়ন দুর্লভপুর গ্রামের কাওসার আহমেদ (৩৫), ইমদাদুল হক আফিন্দীর ছেলে মাহি আফিন্দী (২০), জয়নুল হক (৪০), বাদশা মিয়া (৩২), আব্দুল হোসাইন (৫২), নেছার আহমদ (৩০), সামি আফিন্দী (২০), আব্দুন নূর আফিন্দী (৩৩) ও মানিক মিয়া (৬৫)। এ সময় তাদের কাছ থেকে চাঁদাবাজির সরঞ্জামাদি ২টি নৌকা, ৮টি লোহার রড, দেশীয় অস্ত্র, কয়েকটি মোবাইলসহ নগদ ২ হাজার ২৩০ টাকা জব্দ করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

সুনামগঞ্জ র‌্যাব-৯ এর কোম্পানী কমাণ্ডার লে. সিঞ্জন আহমেদ জানান, দুর্লভপুর এলাকায় চাঁদাবাজির সময় ১০ চাঁদাবাজকে আটক করা হয়েছে। তারা এই এলাকায় সক্রিয় চাঁদাবাজ চক্র। তাদের বিরুদ্ধে একটি মামলার প্রস্তুতি চলছিল।



All Bangla Newspaper
ফেসবুকে আমরা

error: Content is protected !!