মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১২:২৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
পটুয়াখালীতে প্রগতি লেখক সংঘের কবি আড্ডা অনুষ্ঠিত গলাচিপায় নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আহসানুল হক তুহিন পুনরায় নির্বাচিত খালেদা জিয়াকে স্লো পয়জনিং বিএনপির লোকেরাই করতে পারে : কাদের নৌকার বিপক্ষে একটা ভোট গেলে লাশ পড়বে ৫টা, ছাত্রলীগ নেতার হুমকি জয়পুরহাট-সহ উত্তরের জেলা গুলোতে জেঁকে বসেছে শীত ও ঘন কুয়াশা! নওগাঁয় ভোটের মাঠে চেয়ারম্যান পদে পঞ্চমুখী লড়াই  ডিমলা উপজেলার কৃষকরা ভুট্টা চাষে আগ্রহী  গলাচিপা পৌরসভা নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীর সমর্থনে কেন্দ্রীয় সেচ্ছাসেবক লীগের জনসংযোগ।  লক্ষ্মীপুরে বাবা চেয়ারম্যান, চার ভাইবোন হতে চান মেম্বার ‘মু‌জিব কোট খুইল্লা ও‌সিরে গুতাই‌ছি’
ঘোষণা :

কুড়িগ্রামে দুই মাথা নিয়ে কন্যা সন্তানের জন্ম

কুড়িগ্রামে দুই মাথা নিয়ে এক কন্যা সন্তানের জন্ম হয়েছে । জেলা সদরের মোগলবাসা ইউনিয়নের ব্যাপারি পাড়া গ্রামের বাসিন্দা সেকেন্দার-আফরোজা দম্পতির কোলে জন্ম নেয় এই নবজাতক কন্যা শিশুটি ।

জানা যায়, ওই দম্পতি কুড়িগ্রামে একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে পরিক্ষা করে জানতে পারেন তার গর্ভে দুই মাথা বিশিষ্ট একটি সন্তান রয়েছে।পরে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী গত শনিবার সন্ধ্যায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান । সেখানে সিজারের মাধ্যমে ওই দম্পতি দুই মাথা বিশিষ্ট এক নবজাতকের জন্ম দেয়। নবজাতক ও তার মা সুস্থ রয়েছেন। সেকান্দার আলী (৩২)পেশায় একজন মুদির দোকানি।

প্রতিবেশী জাহিদ হাসান বলেন,আফরোজা বেগম (২২)একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে গর্ভের সন্তান পরিক্ষা করে জানতে পারেন তার গর্ভে দুই মাথা বিশিষ্ট বাচ্চা রয়েছে। পরে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সিজারের মাধ্যমে এক কন্যা সন্তানের জন্মদেন ওই মা। তাদের এটাই প্রথম সন্তান।

মোগলবাসা বাসা ইউনিয়নের ৬নং ওর্য়াডের ইউপি সদস্য (মেম্বার) মোঃ জাহাঙ্গীর আলম জানান, আমার ওর্য়াডের মুদি ব্যবসায়ী সেকেন্দার আলীর স্ত্রী রংপুর মেডিকেলে সিজারের মাধ্যমে দুই মাথা বিশিষ্ট এক কন্যা সন্তানের জন্ম দেয়। সন্তান ও সন্তানের মা সুস্থ আছেন বলে জানতে পেরেছি।

এ বিষয়ে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের শিশু বিশেষজ্ঞ ডাঃ আল আমিন মাসুদ বলেন,
“এ ঘটনাটিকে কনজয়েনটুইন বলা হয় । কেননা মায়ের গর্ভে ভ্রন অনেক সময় বৃদ্ধি হওয়ার কারনে আলাদা হতে পারে না,একটি আরেকটির সাথে যুক্ত হয়ে দেহ এক মাথা দুইটি হয় । কুড়িগ্রামে এরকম ঘটনা প্রথম ,তবে দেশে এ ধরনের বাচ্চা সুস্থভাবে বেড়ে উঠলেও পরবর্তীতে বাচ্চাগুলোর জন্য জটিল অস্ত্রপাচারের প্রয়োজন হয়।”



All Bangla Newspaper
ফেসবুকে আমরা
error: Content is protected !!