সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৭:৩৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ঘোষণা :

কসবায় সাংবাদিকে প্রাণনাশের হুমকি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া কসবা প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি ও দৈনিক সমকালের প্রতিনিধি সোলেমান খামকে প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করলেন কসবা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম।
তার ধারাবাহিকতা কসবা প্রেস ক্লাবে সাংবাদিকেরা মানববন্ধন করে  এবং সাংবাদিকেরা শফিকুল ইসলামের তদন্তপর্বক শাস্তির দাবি করেন। কসবা প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি সোলেমান খান অভিযোগ করেন, যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম মুঠোফোনে আমাকে প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করেন।
 তিনি আরো বলেন, আমি কসবা উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট রাশেদুল কাওছার জীবন কে উক্ত বিষয়ে অবগত করলেও তাঁর কাছ থেকে সদুত্তর পাইনি এবং চারদিন পর আমি কসবা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করি। সাংবাদিক সোলেমান খান এর কাছে জানতে চাইলেন তিনি আরো জানান, গত ১৪/ ৯/২০২১ ইং তারিখে যুবলীগের সভাপতি এম এ আজিজ ও সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ আমার বাসায় এসে আমার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন এবং সকল নেতৃবৃন্দ চা চক্র ভোজ করে করে।
কিন্তু যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, আমি সাংবাদিক  সোলেমান খান কে কোন প্রকার মুঠোফোনে প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করি নাই। তিনি প্রমাণ দিতে পারলে যে কোন শাস্তি আমি মাথা পেতে নিব। আমি ষড়যন্ত্রের শিকার। আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার সংবাদ প্রচার করা হয়েছে। আমি তার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই। শফিকুল ইসলাম আরও জানান উক্ত সংবাদটি কসবা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ মনির হোসেন, পৌর মেয়র এমরান উদ্দিন জুয়েল ও কসবা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক কাজী আজহারুল ইসলাম এর যোগসাজশে পরিকল্পিতভাবে মিথ্যা সংবাদ প্রচার করেন।
 তিনি বলেন, আমি কসবা ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক। আমি সুনামের সহিত ব্যবসা পরিচালনা করে আসছি। আমার সামাজিক মর্যাদা ও রাজনৈতিক মর্যাদা ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার লক্ষ্যে পরিকল্পিতভাবে  সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধন। আমি অপরাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার।
কসবা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ মনির হোসেন বলেন, সংবাদ সম্মেলন ও মানব বন্ধন সম্পর্কে আমি কিছুই জানি না। তবে আমি পরস্পর জানতে পেলাম সাংবাদিক সোলেমান খানকে যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করেছে। তিনি আরো বলেন, কেননা এটা সাংবাদিকদের বিষয়।  আমি নোংরা রাজনীতি করি না এবং নোংরামি  বিশ্বাস করিনা। যারা নোংরা রাজনীতি করে এবং নোংরা রাজনীতি বিশ্বাস করে তারা এই ধরনের মিথ্যাচার মন্তব্য করতে পারে।
 কসবা পৌর মেয়র এমরান উদ্দিন জুয়েল বলেন, সাংবাদিক সোলেমান খানকে কে প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করেছে এ সম্পর্কে আমি অবগত নয় এবং সাংবাদিক সোলেমান খান আমাকে কিছুই বলেন নাই।



All Bangla Newspaper
ফেসবুকে আমরা

error: Content is protected !!