শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ১২:৩৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ঘোষণা :

কক্সবাজারের মুহিবুল্লাহ হত্যাকাণ্ড : অস্ত্রসহ আরও দুইজন গ্রেপ্তার

কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা নেতা মোহাম্মদ মুহিবুল্লাহ হত্যার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আরও দুইজনকে অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার করেছে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন।

শনিবার (৩০ অক্টোবর) বিকেলে উখিয়ার ১-ওয়েস্ট লম্বাশিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ডি-১১ ব্লকের কোবা মসজিদের সামনে এ অভিযান চালানো হয় বলে জানান ১৪ এপিবিএন এর অধিনায়ক পুলিশ সুপার মো. নাইমুল হক।

গ্রেপ্তাররা হলেন- উখিয়ার ১-ওয়েস্ট লম্বাশিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ডি-৯ ব্লকের ছাব্বির আহম্মেদের ছেলে আবুল কালাম ওরফে আবু (৩৪) এবং একই ক্যাম্পের ডি-৪ ব্লকের সৈয়দ আনোয়ারের ছেলে মো. নাজিম উদ্দিন (৩৫)। এর আগে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন অভিযানে রোহিঙ্গা নেতা মোহাম্মদ মুহিবুল্লাহ হত্যার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ৯ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।পুলিশ সুপার নাইমুল বলেন, রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যার ঘটনার পর থেকে জড়িতদের গ্রেপ্তার এবং শরণার্থী ক্যাম্পের পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে এপিবিএনসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। শনিবার বিকেলে ১-ওয়েস্ট লম্বাশিয়া ক্যাম্পের ডি-১১ ব্লকের কোবা মসজিদের সামনের কতিপয় অস্ত্রধারী দুর্বৃত্ত অবস্থান করছে খবরে এপিবিএন এর একটি দল অভিযান চালায়।

ঘটনাস্থলে পৌঁছলে এপিবিএন সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে ২/৩ জন দুর্বৃত্ত পালিয়ে গেলেও দুইজনকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়।
‘পরে গ্রেপ্তারদের জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করে, তাদের হেফাজতে অস্ত্র রয়েছে। তাদের স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে ক্যাম্পের একটি বাড়িতে লুকিয়ে রাখা অবস্থায় দেশীয় তৈরি একটি বন্দুক ও একটি গুলি উদ্ধার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃতরা রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যার ঘটনার বিষয়ে সন্দেহজনক তথ্য দিয়েছে।’এপিবিএন এর ওই কর্মকর্তা বলেন, এর আগে মুহিবুল্লাহকে হত্যা ঘটনায় সরাসরি অংশগ্রহণকারী আজিজুল হকসহ ৯ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। এদের মধ্যে ৮ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডে নেওয়া হয়। এছাড়া গ্রেপ্তারদের মধ্যে মোহাম্মদ ইলিয়াছ ও আজিজুল হক আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।
গ্রেপ্তার দুইজনকে উখিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান পুলিশ সুপার নাইমুল হক।



All Bangla Newspaper
ফেসবুকে আমরা
error: Content is protected !!